ইউক্রেনে রুশপন্থী আটক ব্যক্তিদের ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ


image_80522.140504190540_ukraine_odessa_304x171_reuters

ইউক্রেনের ওডেসা শহরের কারাগার থেকে অন্তত ষাটজন আটককৃত ব্যক্তিকে ছেড়ে দিয়েছে ওডেসার পুলিশ। ওডেসার পুলিশ সদর দপ্তরে রুশপন্থী কয়েকশত জনতা হামলা করার পর এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশের বিরুদ্ধে কর্তব্যে অবহেলার অভিযোগ করছে ইউক্রেনের আইনজীবীরা। আটককৃতদের প্রায় সকলেই ছিল রুশপন্থী এবং গত শুক্রবারে ওডেসায় ঘটে যাওয়া সহিংসতার ঘটনায় তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

রোববার রুশপন্থী প্রায় কয়েকশত মানুষ পুলিশ সদর দপ্তরের দরজা ও জানালা ভেঙে ভবনে প্রবেশ করে এবং ভবনের দখল নিয়ে নেয়। এরপরই আটক ব্যক্তিদের ছেড়ে দেয় ওডেসার পুলিশ। গত শুক্রবার ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের এই শহরটিতে ঐক্যবদ্ধ ইউক্রেন এবং ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে রাশিয়ার সাথে যুক্ত হতে চাওয়া রুশপন্থী জনতার মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় ওডেসা শহরের ট্রেড ইউনিয়ন ভবনে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। অগ্নিকান্ডে অন্তত ৪২ জন মানুষ মারা যায় এবং নিহতের প্রায় অধিকাংশই ছিল রুশ-সমর্থক।

এর পর থেকেই ওডেসা উত্তপ্ত ও সহিংসতাপূর্ণ হয়ে উঠতে থাকে। শুক্রবারের সংঘর্ষ ঠেকাতে ব্যর্থ হওয়ায় পুলিশকেই দায়ী করেছেন দেশটির বর্তমান প্রধানমন্ত্রী আর্সেনিই ইয়াৎসেনিয়ুক। ঘটনাটি খতিয়ে দেখতে একটি তদন্ত চালানোর জন্যও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। এই ঘটনার জন্য মি. ইয়াৎসেনিয়ুক আবারো রাশিয়াকেই দোষারোপ করেছেন। অবশ্য রাশিয়া বরাবরই তা অস্বীকার করছে।

সূত্র: বিবিসি

(119)