গরমে আরাম পেতে !


 

heatতীব্র গরমে সবার প্রাণ যায় যায় অবস্থা। বাড়িতে বসে থেকেও গরমের হাত থেকে রেহাই নেই। আর বাইরে বেরুলে তো কথাই নেই। প্রচণ্ড এই গরমে কিছুটা স্বস্তি পেতে এখানে আটটি পরামর্শ দেওয়া হলো।
. পানি আপনার প্রথম বন্ধু
সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ দিন যে তিনি পানিকে আশীর্বাদ হিসেবে দিয়েছেন। গরমের দাবদাহ শরীর থেকে পানি শুষে নেয়। তাই সব সময় হাইড্রেট থাকতে হলে প্রচুর পানি খেতে হবে। এই পানিই আপনাকে অন্তত সুস্থ রাখবে।
. ঠাণ্ডা খাবার খান
যে খাবারগুলো ঠাণ্ডা এবং প্রশান্তি এনে দেয় সেগুলো খান। গরমে এমন খাবার প্রচুর পাওয়া যায়। তরমুজ, বিভিন্ন ফলের জুস, শসার মতো রসালো খাবার খান। পারলে এগুলো ফ্রিজ থেকে সরাসরি বের করে খান।
. গোসল করুন
শাওয়ার ছেড়ে দাঁড়িয়ে থাকুন। সুযোগ পেলেই গোসল করুন। সকালে বের হওয়ার আগে গোসল করুন। বাসায় ফিরে আসলে আবার একটু গোসল করে নিন। এতে দেহের তীব্র গরম কমে যাবে এবং ফ্রেস লাগবে।
. চুলটাকে একটু ছোট করে কাটুন
গরমকালটাকে ছোট চুলের ফ্যাশন হিসেবে নিন। এতে নানা ফ্যাশনেবল কাট দেওয়া যাবে এবং এতে গরম কম লাগবে। তা ছাড়া ছোট চুলে চেহারাও অনেক কিউট লাগে।
. উজ্জ্বল হালকা রঙের কাপড় পড়ুন
উজ্জ্বল ও হালকা রঙের কাপড় সূর্যের আলো প্রতিফলিত করে দেয়। এতে দেহে তাপ কম লাগে। গাঢ় রঙ বেশি তাপ শুষে নেয়। তা ছাড়া হালকা রঙ গরমের জন্য ফ্যাশনেবল।
. জানালায় পর্দা দিন এবং খোলা রাখুন
গরমের দিনে বাসায় থাকা অবস্থায় ঘরে সূর্যের আলো প্রবেশ না করেতে দেওয়াই ভালো। এতে বাসা ওভেনের মতো গরম হয়ে থাকবে। তবে বাতাস প্রবেশের জন্য জানালা খোলা রাখুন, পর্দা দিয়ে দিন তাপ ঠেকাতে। এতে গরম অনেক কমে যাবে।
. রান্না ছাড়া চুলো বন্ধ রাখুন
রান্নার সময় ঘরে তাপ ছড়িয়ে যায়। কিন্তু রান্না তো করতেই হবে। তাই রান্নার কাজ শেষ করেই চুলো বন্ধ করে দিবেন। সম্ভব হলে রান্না ঘরে একটি একজস্ট ফ্যান লাগিয়ে নিয়ে তা ছেড়ে দিন। ভিতরের গরম তাপ বের হয়ে যাবে।
. পুল পার্টি
যাদের সুযোগ রয়েছে তারা একটু ঘনঘন সুইমিং পুলে চলে যান। বন্ধু-বান্ধব বা পরিবার নিয়ে পানিতে মেতে আসুন।
সূত্র : ইন্টারনেট

(156)