ফুঁসে উঠেছে নারায়ণগঞ্জ


n_gonzনারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের অপহৃত কাউন্সিলর নজরুল ইসলামের মৃতদেহসহ পাঁচটি লাশ উদ্ধারের খবর পেয়ে আজ বুধবার বিকেল থেকে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন স্থানীয় মানুষ। বিক্ষুব্ধ লোকজন নেমে আসেন রাস্তায়। তাঁদের অবরোধে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। সড়কে আগুন জ্বালিয়ে চলছে বিক্ষোভ। এতে দেখা দিয়েছে তীব্র যানজট।

নজরুলের সমর্থকেরা সাইনবোর্ড থেকে শিমরাইল পর্যন্ত সড়ক অবরোধ করে রাস্তায় আগুন ধরিয়ে বিক্ষোভ করছেন। ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটের সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাক এলাকাও অবরোধ করেছেন তাঁরা।

দুপুরে খবর মেলে, বন্দর উপজেলার গলাগাছিয়া ইউনিয়ন এলাকায় শীতলক্ষ্যা নদীতে তিনটি লাশ ভেসে উঠেছে। পুলিশ গিয়ে লাশ তিনটি উদ্ধার করে। লাশ পাওয়ার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান তিন দিন আগে অপহূত নজরুলের ভাই আবদুস সালাম। আর সেখানে গিয়েই শনাক্ত করেন ভাই নজরুল ইসলামের মরদেহ।

এরপর আরও দুটি লাশের সন্ধান মেলে। নারায়ণগঞ্জে গত রোববার অপহৃত সাতজনের মধ্যে পাঁচজনের লাশের সন্ধান মিলেছে এ পর্যন্ত। পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে চারজনের। নজরুল ছাড়া বাকি তিনজন হলেন নজরুলের সঙ্গে গাড়িতে থাকা তাজুল ইসলাম ও মনিরুজ্জামান স্বপন এবং আইনজীবী চন্দনকুমার সরকারের গাড়িচালক ইব্রাহিম। তবে এখনো খোঁজ মেলেনি নজরুলের গাড়িচালক জাহাঙ্গীর ও জ্যেষ্ঠ আইনজীবী চন্দনকুমার সরকারের।

বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার মোরশেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, স্বপনের লাশ শনাক্ত করেন তাঁর ভাই রিপন, ইব্রাহিমের লাশ শনাক্ত করেন তাঁর ভাই আবু বকর এবং তাজুলের ভাই আনিস তাঁর লাশটি শনাক্ত করেন।

(139)