বার্সাকে হারিয়ে কোপা দেল রে’র শিরোপা রিয়ালের


realকোপা দেল রে’র ফাইনালে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনাকে হারিয়ে এবারের শিরোপা জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ। সর্বশেষ এই টুর্নামেন্টের ফাইনালে দুল দু’টি মুখোমুখি হয়েছিল ২০১১ সালে। সেবার রিয়ালের পর্তুগিজ উইঙ্গার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো অতিরিক্ত সময়ের গোলে গোলে শিরোপা ঘরে তোলে মাদ্রিদের দলটি। তবে এবারের ফাইনালে ইনজুরির কারণে মাঠে নামতে পারেননি তিনি।

তবে শিরোপা জিততে কোন অসুবিধা হয়নি রিয়ালের। রোনালদোর জায়গায় খেলা গ্যারেথ বেলের অসাধারণ নৈপুন্যে প্রতিপক্ষকে ২-১ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতেছে তারা। এই মওসুমে এর আগে স্প্যানিশ লা-লিগায় দুইবার মুখোমুখি হয়েছে দল দু’টি। ন্যু ক্যাম্প ও বার্নাব্যুর দু’টি ম্যচেই জয় ছিল কাতালানদের। তবে মওসুমের শেষ ও শিরোপা নির্ধারনী এল-ক্লাসিকো কাজের কাজটি করেছে লস ব্লাঙ্কোসরা। ভ্যালেন্সিয়ার মাঠে এদিন ম্যাচের ১১তম মিনিটেই রিয়ালকে এগিয়ে দেন আর্জেন্টাই মিডফিল্ডার অ্যাঞ্জেল ডি মারিযা।

তবে ৬৮ মিনিটে বর্সেলোনাকে সমতা এনে দেন ডিফেন্ডার মার্ক বারত্রা। নির্ধাতি সময়ের কেরা তখন ড্র এর দিকে যাচ্ছিল। কিন্তু ম্যাচের শেষ বাঁশি বাজার পাঁচ মিনিট আগে দুর্দন্তভাবে একটি গোল করে রিয়ালের শিরোপা নির্ধারণ করেন গ্রহের সবচেয়ে দামি ফুটবলার গ্যারেল বেল। রিয়ালের হয়ে এটি ছিল তার ২০তম গোল। আর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার বিপক্ষে প্রথম।

রিয়ালের এসে এর আগে কাতালানদের বিপক্ষে তিনি মোট ১৫১ মিনিট মাঠে থেকেছেন। কিন্তু প্রতিপক্ষের গোলমুখে মাত্র একবার শট নিতে পেরেছেন। বেল যেন এই দিনটির অপেক্ষায়ই ছিলেন। গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে দারুণ গোল করে রিয়ালকে কোপা দেল রে’র ১৯তম শিরোপা এনে দিলেন তিনি। স্প্যানিশ এই ক্লাবটিতে যোগ দেয়ার নিজের প্রথম শিরোপা জয়ের নায়ক বনে গেলেন বেল নিজেই। সঙ্গে কোচ কার্লো আনচেলত্তিকেও এনে দিলেন রিয়াল মাদ্রিদে প্রথম শিরোপা।

বার্সেলোনার দুই স্ট্রাইকার লিওনেল মেসি ও নেইমার এদিন ছিলেন নিষ্প্রভ। মাঝেমধ্যে নেইামরের হালকা ঝলক দেখা গেলেও মেসি ছিলেন যেন দৃষ্টির বাইরে। বল পায়ে তাকে এদিন খুঁজেই পাওয়া যায়নি।

(137)