ব্রাজিলে বিশ্বকাপবিরোধী মিছিল থেকে ৫৪ জন আটক


 

brazilমঙ্গলবার রাতে বিশ্বকাপ বিরোধী বিক্ষোভ প্রদর্শনকালে ৫৪ ব্যক্তিকে আটক করেছে ব্রাজিল পুলিশ। এ সময় বিক্ষোভকারীরা দুটি ব্যাংকেও ভাঙচুর চালিয়েছে বলে পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

প্রায় এক হাজার বিক্ষোভকারী সাও পাওলোর প্রাণকেন্দ্র এবিনিদা পাওলিস্তা সড়কে মিছিল করে। সেখানে আগামী ১২ জুন অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বকাপ ফুটবলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। এ সময় তারা বিভিন্ন স্লোগান সংবলিত ব্যানার বহন করে। ওইসব ব্যানারে তারা, কোটি কোটি ডলার খরচ করে বিশ্বকাপ আয়োজনের বিপক্ষে বিভিন্ন স্লোগান প্রদর্শন করে।

পুলিশ টুইটারের মাধ্যমে জানিয়েছে যে, বিশৃঙ্খলা উসকে দেয়ার অভিযোগে তারা সেখান থেকে ৫৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। মিছিলের শুরুতে তারা একটি ব্রাজিলীয় পতাকাও পুড়িয়ে দেয়। পরে বিক্ষোভকারীরা দুটি ব্যাংকের শাখা অফিসের জানালা ভেঙ্গে দেয়। পুলিশ তাদের ঘিরে রাখলেও তারা সড়কটির ব্যরিকেড সরিয়ে নিতে অস্বীকৃতি জানায়।

এর আগেও সাও পাওলোতে বিশ্বকাপ বিরোধী একাধিক বিক্ষোভ হয়েছে, তবে সেগুলো ছিল অপেক্ষাকৃত শান্তিপূর্ণ।

এর আগে গত বছরের জুন মাসে বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রস্তুতি হিসেবে ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত কনফেডারেশন কাপ চলাকালেও ব্যাপক আন্দোলন হয়েছিল। এ সময় ১০ লাখেরও বেশী ক্ষুব্ধ জনতা শিক্ষা, যাতায়াত, ও স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নের দাবির পাশাপাশি ব্যাপক দুর্নীতি প্রতিরোধে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছিল।

তবে সাম্প্রতিক আন্দোলনগুলো ছোট হলেও বেড়ে গেছে সহিংসতার মাত্রা। এ সময় তারা সভ্যতার মাপকাঠিকে মাড়িয়ে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষেও লিপ্ত হচ্ছে। ফলে পুলিশও মাঝে মধ্যে তাদের বিপক্ষে কঠোর ব্যবস্থা নিয়েছে। নতুন করে দানা বেধে ওঠা বিক্ষোভ দমনে পুলিশ স্টান্ট গ্রেনেড ব্যবহার করছে।

ব্রাজিলের ১২টি শহরে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপ ফুটবল শেষ হবে রিও ডি জেনিরোতে ১৩ জুলাই ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে। স্বাগতিক ব্রাজিল এবারের আসরে শিরোপা জয়ের শক্তিশালী দাবীদার।

(167)