রাহুলকে সভার অনুমতি দেয়নি, মোদি পেয়েছেন : কংগ্রেস ক্ষুব্ধ


Rahul & modiমমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল কংগ্রেস পরিচালিত কলকাতা পুরসভা পার্ক সার্কাস ময়দানে রাহুল গান্ধীর নির্বাচনী জনসভা করার অনুমতি দেয়নি। অথচ বিজেপির প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী নরেন্দ্র মোদিকে তারা অনুমতি দিয়েছে। আগামী ৮ মে বৃহস্পতিবার এ পার্কে কংগ্রেসের সহসভাপতি রাহুলের সভা করার কথা জানিয়ে পুরসভার কাছে সোমবার চিঠি পাঠিয়েছিলেন উত্তর কলকাতার কংগ্রেস প্রার্থী সোমেন মিত্র। সে আবেদন নাকচ করে দিয়েছে পুরসভা কর্তৃপক্ষ। অথচ তার আগের দিন, আগামীকাল ৭ মে বুধবার বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নরেন্দ্র মোদিকে সভার জন্য পুরসভার পার্ক ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে পুরসভা। ফলে তৃণমূল পরিচালিত পুরসভার বিরুদ্ধে দ্বিচারিতা এবং বৈষম্যের অভিযোগ এনে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছে কংগ্রেস।

রাহুলকে সভা করার অনুমতি না দিয়ে মোদিকে অনুমতি দেয়াকে রাজনৈতিক অভিসন্ধি বলেছে কংগ্রেস। ২৫ মার্চ পার্ক সার্কাস ময়দানেই রাহুলের কর্মিসভার জন্য আর্জি জানানো হয়েছিল পুরসভায়। সে বার পরীক্ষার কারণ দেখিয়ে তা দেওয়া যাবে না বলে মৌখিকভাবে জানিয়েছিল পুর প্রশাসন। দিল্লীতে মুখ্য নির্বাচন কমিশনার ভি এস সম্পতসহ কমিশনের ফুল বেঞ্চ এবং পশ্চিমবঙ্গের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপ নির্বাচন কমিশনার বিনোদ জুৎসির কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেস নেতা প্রদীপ ভট্টাচার্য। তার বক্তব্য, পুর কমিশনারকে শো কজ করার দাবি জানিয়েছি কমিশনের কাছে।এটা তৃণমূলের রাজনৈতিক অভিসন্ধি, তা-ও জানিয়েছি কমিশনকে। তিনি অভিযোগ, তৃণমূল রাহুলকে নিয়ে ভীত। মোদির সঙ্গে ওদের গোপন সখ্য রয়েছে! তাই এমন দ্বিচারিতা করছে তৃণমূল। এই দ্বিমুখী চরিত্রটাই তৃণমূলের আসল চেহারা!

পুরসভার এক মেয়র পারিষদ জানিয়েছেন, গত মার্চে পরীক্ষার কারণে কংগ্রেসকে পার্ক সার্কাস ময়দান ব্যবহারের অনুমতি দেয়া যায়নি। তখনই কমিশনের কাছে অভিযোগ জানিয়েছিল তারা। তার পরেই কমিশন পুরসভাকে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেয়, নির্বাচনের জন্য ওই পার্ক কোনও দলকেই ব্যবহার করতে দেওয়া যাবে না। তার ভিত্তিতেই এ বার পার্ক সার্কাস ময়দানের অনুমোদন দেওয়া হবে না বলে কংগ্রেসকে জানানো হয়েছে। আর দ্বিচারিতার অভিযোগের প্রেক্ষিতে তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বলেছেন, এটা প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত। এ ব্যাপারে কিছু জানা নেই।

পার্ক সার্কাস ময়দানের অনুমতি না পেয়ে আগের বারের মতোই সেনাবাহিনীর অধীনস্থ শহিদ মিনার ময়দানে রাহুলের সভা করার প্রস্তুতি নিচ্ছে কংগ্রেস। সেনাবাহিনীর অনুমতিও মিলেছে বলে কংগ্রেস সূত্রের খবর। ওই দিন বেলা ১টা নাগাদ ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত ডেবরায় রাহুল প্রথম সভা করবেন।

(137)