১৫ মে থেকে ভোটার তালিকা হালনাগাদ


rokib২০১৫ সালের ১ জানুয়ারিতে যাদের বয়স ১৮ হবে তাদের ভোটার করা হবে। ১৫ মে থেকে ভোটার তালিকা হালনাগাদ শুরু হবে। তিন ধাপে ভোটার করা হবে। এ ছাড়া যারা আগে ভোটার হতে পারেননি তাঁরা যেকোনো সময় ভোটার হতে পারবেন বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমেদ।

 আজ সোমবার বিকেলে নির্বাচন কমিশনের মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। এবার ভোটার সংখ্যা কম হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমাদের আগের যেসব প্রয়োজনীয় উপকরণ রয়েছে তা দিয়ে কাজ শুরু হবে। প্রচারণার মাধ্যমে আমরা বিষয়টি সবাইকে জানাব। যাতে সবাই ভোটার হওয়ার সুযোগ নিতে পারে। ১৫ মে থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত তালিকা হালনাগাদের কাজ চলবে।

সোমবারের কমিশন সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় জানিয়ে সিইসি বলেন, দেশের নতুন ভোটার ও নারীদের সচেতন করতে গণমাধ্যমের সহযোগিতা চাই। যেভাবে আগে পেয়েছি। এ ছাড়া যারা প্রবাসী তারা যাতে ভোটার হতে পারেন সেভাবে আমরা পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছি। এ সময় তিনি বরিশাল সদর আসনের উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন। তফসিল অনুযায়ী, রিটার্নিং অফিসারের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ১১ মে, মনোনয়ন যাচাই-বাছাই ১৪ মে, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২১ মে এবং ভোটগ্রহণ ১২ জুন। তিনি বলেন, এ নির্বাচন নিয়ে আগামী ২৯ মে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বৈঠক, অন্য নিয়মাবলি সংসদ নির্বাচনের মতো হবে।

 দ্বৈত ভোটারের বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে ভোটার তালিকা করছি। কেউ যদি দ্বৈত ভোটার হতে চান তাহলে তারা ভোটার হতে পারবেন না। কারণ, আমাদের আইডেনটিফিকেশন সিস্টেমে তা ধরা পড়বে। এটা আইন অনুযায়ী অপরাধ। ধরা পড়লে জেল জরিমানাও হতে পারে। ভোটার করার জন্য বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করা হবে এবং কার্ড হয়ে গেলে বাড়িতে গিয়ে বিলি করা হবে। এ ছাড়া যারা মিস করবেন তাঁদের রেজিস্ট্রেশন সেন্টারে এসে ফরম পূরণ করতে হবে।

(149)